পাবনা

চাটমোহরে ভূমি সেবা সপ্তাহ উদ্বোধন

  নিউজ ডেস্ক ২২ মে ২০২৩ , ৩:৫৮:৪৯

চাটমোহরে ভূমি সেবা সপ্তাহ উদ্বোধনের মুহুর্ত। ছবি : তুষার ভট্রাচার্য্য

পাবনার চাটমোহরে ‘ভূমি সেবা সপ্তাহ-২০২৩’ উদ্বোধন করা হয়েছে। এ বছরের ভূমি সেবা সপ্তাহের প্রতিপাদ্য নির্ধারণ করা হয়েছে ‘স্মার্ট ভূমি সেবায় ভূমি মন্ত্রণালয়।’

সোমবার (২২ মে) সকাল ১০ টায় উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) কার্যালয়ের ভূমি সেবা সপ্তাহের উদ্বোধন করা হয়েছে।

প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে ভূমি সেবা সপ্তাহের উদ্বোধন করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোছা. মমতাজ মহল।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোছা. তানজিনা খাতুন, সার্ভেয়ার ইছাহক আলী, নাজির কাম ক্যাশিয়ার বাবুল উদ্দিন, ইউনিয়ন ভূমি সহকারী কর্মকর্তা মোস্তফা শামীম, পার্শডাঙ্গা ইউনিয়ন ভূমি সহকারী কর্মকর্তা মো. নাকিবুল্লাহ, হরিপুর ইউনিয়ন ভূমি সহকারী কর্মকর্তা জাহাঙ্গীর আলম, ছাইকোলা ইউনিয়ন ভূমি সহকারী কর্মকর্তা জাহাঙ্গীর ইসলাম, গুনাইগাছা ইউনিয়ন ভূমি সহকারী কর্মকর্তা কলি সরকার, সার্টিফিকেট সহকারী মাবিয়া খাতুন, সায়রাত সহকারী রুহুল আমিনসহ বিভিন্ন ইউনিয়ন ভূমি সহকারী কর্মকর্তা-কর্মচারী, সেবা গ্রহিতা, সাংবাদিক ও সুধিজন উপস্থিত ছিলেন।।

উপজেলা সহকারী কমিশনার ভূমি মোছা.তানজিনা খাতুন জানান, ‘২২ মে থেকে ২৮ মে পর্যন্ত মোট ৭ দিন এ সেবা সপ্তাহ চলবে।’

প্রসঙ্গত, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উদ্বোধন করা স্মার্ট ভূমিসেবার মূল অংশীজন হিসেবে দেশের জনগণকে সম্পৃক্ত করা, স্মার্ট ভূমিসেবা বিষয়ে সকলকে পুঙ্খানুপুঙ্খভাবে অবগত করা ও ভূমি সেবা পাওয়ার ক্ষেত্রে নিজ নাগরিক অধিকারের ব্যাপারের সকলের মধ্যে সচেতনতা বৃদ্ধি করাই এ বছরের ভূমি সেবা সপ্তাহের মূল লক্ষ্য।

এছাড়াও, ভূমিসেবা সপ্তাহকালীন বিশেষ অগ্রাধিকার ভিত্তিতে বেশকিছু ভূমিসেবা প্রদান করা হবে।

সরকার উন্নত বাংলাদেশ বিনির্মাণে স্মার্ট বাংলাদেশ ভিশন ২০৪১ প্রতিষ্ঠা এবং স্মার্ট বাংলাদেশ রোডম্যাপে ৪টি পিলার স্মার্ট সিটিজেন, স্মার্ট সোসাইটি, স্মার্ট ইকোনমি এবং স্মার্ট গভর্নেন্স অন্তর্ভূক্ত করে উন্নয়ন পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে।

সরকারের পরিকল্পনার অংশ হিসেবে প্রধানমন্ত্রীর উদ্বোধন করা চারটি স্মার্ট ভূমিসেবা ‘রেজিস্ট্রেশন-মিউটেশন আন্তঃসংযোগ’, ‘স্মার্ট ভূমি নকশা’, ‘স্মার্ট ভূমি রেকর্ড’ ও ‘স্মার্ট ভূমি-পিডিয়া’ ছাড়াও বেশকিছু ভূমিসেবা ব্যবস্থা ‘স্মার্ট ডিজিটালাইজ’ করা হচ্ছে। ইতোমধ্যে ডিজিটালাইজকৃত ভূমিসেবা সমূহও স্মার্ট করে ব্যবহারের সহায়ক ও সহজ করে গড়ে তোলার পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে।

ইতোমধ্যে ই-নামজারির দ্বিতীয় ভার্সন স্থাপনের কাজ এবং বাংলাদেশ ডিজিটাল সার্ভেতে ড্রোন প্রযুক্তির ব্যবহারও রয়েছে।

সম্পদের দক্ষ ব্যবহার করে তথ্য চালিত উন্নত নাগরিকসেবা প্রদান এবং নাগরিক সেবা গ্রহণের অভিজ্ঞতা আরো বেশি সহজ করতে স্মার্ট ভূমি ব্যবস্থাপনা সিস্টেম ডিজাইনে  কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা, ব্লককচেইন, ক্লাউড কম্পিউটিং, ড্রোন এবং ইউএভি, রিমোট সেন্সিং, মেশিন ভিশন, বায়োমেট্রিক্সসহ সর্বাধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহার করা হবে। এর ইউজার ইন্টারফেস হচ্ছে ‘স্মার্ট ভূমিসেবা প্ল্যাটফর্ম’ ওয়েব পোর্টাল এবং সংশ্লিষ্ট মোবাইল অ্যাপ।

এ বছরের ভূমি সেবা সপ্তাহে ই-নামজারি, অনলাইনে ভূমি উন্নয়ন কর, ডাকযোগে সার্টিফাইড খতিয়ান ও ম্যাপ এবং ১৬১২২ নম্বরে কল সেন্টারের মাধ্যমে ভূমিসেবা প্রদানে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দেওয়া হবে।

এছাড়াও ‘রেজিস্ট্রেশন-মিউটেশন আন্ত:সংযোগ’, ‘স্মার্ট ভূমি নকশা’, ‘স্মার্ট ভূমি রেকর্ড’ ও ‘স্মার্ট ভূমি-পিডিয়া’সহ স্মার্ট ভূমিসেবা স্থাপনে মন্ত্রণালয়ের পরিকল্পনার ব্যাপারে সম্যক ধারণা প্রদান করা হবে।